গর্ভাবস্থায় নিদ্রা বিকার

img

গর্ভাবস্থায় বিভিন্ন শারীরিক এবং হরমোনাল পরিবর্তনের কারণে একজন মায়ের ঘুমানো নিয়ে বিভিন্ন রকম সমস্যা দেখা দিতে পারে:

  • মানসিক ও শারীরিক অবসাদের কারণে অনিদ্রা।
  • প্রোজেস্টেরনের মাত্রা বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে ঘনঘন বাথরুমে যাওয়া।
  • ভ্রূণের ক্রমাগত বৃদ্ধির কারণে যন্ত্রণা হতে পারে যা থেকে ঘুম না আসার সম্ভাবনা থাকে।
  • রাত্রে ভাল ঘুম না হওয়ার জন্যে দিনের বেলায় অনেকক্ষণ ঘুমানো।
  • ওজন বৃদ্ধির কারণে পায়ে খিঁচ ধরা বা ক্লান্তি দেখা দিতে পারে।
  • অম্বল বা গলা জ্বালার জন্য রাত্রে ঘুমোতে অসুবিধা।
  • রক্তচাপ বৃদ্ধির জন্যে নাকে সমস্যা দেখা দিতে পারে।
  • রেস্টলেস লেগ সিন্ড্রোম বা আর এল এস দেখা দিতে পারে যার ফলে আপনার পায়ে সবসময় একটা অস্বস্তি ভাব থাকবে।
  • অত্যাধিক দুশ্চিন্তার কারণে অনিদ্রা দেখা দিতে পারে।

কি করবেন?

ঘুমোতে কোনও রকম সমস্যা হলে আপনি অবিলম্বে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। তাছাড়া আপনি নিম্নলিখিত পরামর্শগুলি মেনে দেখতে পারেন:

  • নিয়মিত ব্যায়াম করুন। তবে শোয়ার আগে ব্যায়াম না করাই ভাল।
  • ক্যাফিন-জাত খাবার এড়িয়ে চলুন। এতে আপনার ঘুম নষ্ট হতে পারে।
  • খাবারে চিনির মাত্রা কমান। চিনি আপনার ঘুমের মাত্রায় প্রভাব ফেলতে পারে।
  • শোওয়ার আগে হালকা গরম জলে স্নান করে নিন বা গান শুনুন।
  • সারাদিনে প্রচুর পরিমাণে জল খান যাতে ঘুমের মধ্যে জল তেষ্টা না পায়।
  • দিনের বেলা এবং রাত্রে বেলা শোওয়ার মাঝে অনেকটা ব্যবধান থাকা বাঞ্ছনীয়।
  • শোওয়ার আগে হালকা কিছু খেয়ে নিন। তাহলে রাত্রিবেলা খিদে পাবে না।
  • পিঠে এবং তলপেটে একটা অতিরিক্ত বালিশ দিলে ঘুমোতে সুবিধা হতে পারে।

আপনার চিকিৎসককে যে কোনও অসুবিধার কথা জানান। তাঁকে না জানিয়ে কোনও ওষুধ খাবেন না।