• হোম
  • আত্মহত্যা প্রতিরোধ

আত্মহত্যা প্রতিরোধ

প্রতি বছর ভারতে ১,০০,০০০-এরও বেশি মানুষ আত্মহত্যা করেন। ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস বুরো (এন সি আর বি) থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, বিগত দশকে (২০০২-২০১২) দেশে আত্মহত্যার হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে শতকরা ২২.৭ ভাগ।

আত্মহত্যার কারণগুলি সমাজে শ্রেণিভেদ এবং রুচিভেদের উপর নির্ভরশীল। কিন্তু এটা মনে রাখা জরুরি, আত্মহত্যা অবশ্যই প্রতিরোধযোগ্য। আত্মহত্যার চেষ্টা রোখার জন্য চারপাশের সাহায্য যেমন দরকার, তেমন মনোবৈজ্ঞানিক দিক থেকেও আত্মহত্যার প্রবণতা ঠেকানো যেতে পারে। আত্মহত্যার ঘটনা এড়ানোর জন্য সমাজেরও সমানভাবে দায়িত্ব পালন করা উচিত।

একজনের আত্মহত্যা তার চারপাশে থাকা মানুষগুলির উপর যেমন, পরিবার, বন্ধু, সহকর্মী প্রমুখকে ভীষণভাবে প্রভাবিত করে। আত্মহত্যা নামক কাজটির সম্পর্কেও মানুষের ধারণা জন্মায়। এই পর্বে আত্মহত্যা এবং এর প্রতিরোধে সমাজের প্রতিটি মানুষের দায়িত্ব ঠিক কীরকম, তা বোঝার চেষ্টা করা হবে। বিশেষজ্ঞদের মতে, সমব্যথী হয়ে আন্তরিক আলোচনার মধ্য দিয়েও সমাজে আত্মহত্যার ঘটনা ঠেকানো যায়। এটা বোঝা জরুরি, কীভাবে আত্মহত্যা রোখা যেতে পারে।

অনুসন্ধান করুন

আরও পড়ুন