We use cookies to help you find the right information on mental health on our website. If you continue to use this site, you consent to our use of cookies.

যোগ না করার অজুহাত

একগুচ্ছ অজুহাত যা বেশিরভাগ মানুষ দেন যোগ না করার জন্য।

শারীরিক সুস্থতার বিষয়ে আমাদের সচেতনতা ক্রমশ বাড়ছে। সব থেকে বড় কথা হল যোগাভ্যাসে এখন মানুষের আগের থেকে অনেক বেশী আগ্রহ দেখা যাচ্ছে। যদিও, অনেক উপকারিতার কথা জানলেও, আমাদের মধ্যে অনেকেই মন থেকে যোগাভ্যাসকে গ্রহণ করতে পারেন নি। এখানে কিছু সাধারণ অজুহাতের কথা বলা হল যা আমরা যোগ না করার জন্য দিয়ে থাকি।

#১ আমি যথেষ্ট নমনীয় বা ফ্লেক্সিবল নই

বেশিরভাগ মানুষের ভুল ধারণা যে যোগাভ্যাস করার জন্য নমনীয়তা আগে থেকে অর্জন করা দরকার। যাঁরা যোগাভ্যাস করেন তাঁরা সকলেই প্রথম থেকেই নিজের নিজের নাকে পায়ের আঙুল ঠেকাতে পারেন না। শারীরিক নমনীয়তা আসলে যোগাভ্যাসের ফল। ব্যায়ামের মত না হলেও, যোগের ধীর ও নিয়ন্ত্রিত অভ্যাসের ফলে হাড়ের গঠনানুসারে মাস্‌ল বা পেশীর সঠিক বিকাশ হয়। এর ফলে নমনীয়তা বৃদ্ধি পায়। অনেক ধরণের যোগ আছে যার থেকে আপনি আপনার শরীরের গঠন ও প্রকৃতির সাথে সামঞ্জস্য রেখে বেছে নিতে পারেন।

#২ আমার সময় নেই

এখনকার দিনে যে কোনো কাজের ক্ষেত্রে এই অজুহাতটাই সবথেকে বেশী শোনা যায়। যদিও, আমাদের মধ্যে অনেকেই যোগাভ্যাসকে এড়িয়ে যাই এই ভেবে যে আমাদের হয়ত শেষে ঘণ্টার পর ঘণ্টা ধ্যান করতে হবে। এটা সত্যি যে কিছু কিছু উন্নত (অ্যাডভান্সড) ধরণের যোগাভ্যাসে যথেষ্ট সময় লাগে, কিন্তু কম সময়ব্যাপীও অনেক যোগাভ্যাস রয়েছে যা আপনাদের ব্যস্ত দিনলিপিতে সহজেই জায়গা পেতে পারে।

#৩ যোগাভ্যাস আমার জন্য যথেষ্ট উন্নত

১ নং পয়েণ্টে যেমন বলা হয়েছে ঠিক তেমনি বলা যায়, যাঁরা যোগাভ্যাস অনুশীলন শুরু করেন তাঁদের প্রত্যেকেই টেলিভিশনে দেখানো যোগীদের মতন কঠিন ভঙ্গি অভ্যাস করতে পারেন না। সকলেই শুরু করেন শিক্ষানবীশ হিসাবে এবং ধীরে ধীরে তাঁরা উন্নতি লাভ করেন। অন্য যেকোনো কাজের মত এখানেও আপনার উন্নতি নির্ভর করে নিয়মিত অভ্যাসের ওপর।

#৪ হয় আমি জিম-এ যাব নাহলে ছুটতে যাব

এটা খুবই যুক্তিযুক্ত কারণ আর শারীরিক সুস্থতার খেয়াল রাখাটাই হল আসল কথা। যদিও, দেখা গেছে  যে, যোগাভ্যাসের কিছু অতিরিক্ত উপকারিতা আছে; কাজেই আপনার শারীরিক কসরতের সাথে সাথে কিছু কিছু যোগাভ্যাসের অনুশীলন আরও বেশী উপকারী হবে, যেমন, এর ফলে আঘাতের হাত থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে।

#৫ যোগ শিক্ষা খুবই ব্যয়বহুল

এটা কিছুটা হলেও সত্যি; বড় বড় শহরে যোগ শিক্ষা কেন্দ্রগুলো বেশ ভালো অর্থই দাবী করে কিন্তু সেখানে কিছু কিছু কেন্দ্র এমনও আছে যারা সামান্য অর্থের বিনিময়ে প্রাথমিক স্তরের শিক্ষা দেয়। তাদের অনেকরই খরচ নিকটবর্তী জিমের সদস্যপদ-এর (মেম্বারসিপ) থেকেও কম। আর যদি আপনি যোগের জন্য খরচ করতে রাজী না থাকেন, সেক্ষেত্রে ইউটিউব বা ফোনের জন্য কিছু ফ্রি বা স্বল্প মূল্যের অ্যাপ্‌সও আছে যেখানে শিক্ষামূলক ভিডিও আছে যা থেকে যোগাভ্যাস করা যায়।

#৬ এটা খুবই একঘেয়ে

জীবনের কোন না কোন মুহূর্তে আপনার এই একই কথা মনে হয়েছে বই বা সিনেমার বিষয়, কিন্তু পরবর্তীকালে এগুলোই খুব ভালো লাগে। প্রাথমিকভাবে যোগব্যায়ামও একঘেয়ে লাগে কিন্তু এক্ষেত্রে একটা চেষ্টা করা যেতে পারে। এটা আপনার মুড ঠিক রাখে এবং জীবনের মুখ্য উদ্দেশ্য যেমন সুখ, শান্তি, আনন্দ সবকিছুই বৃদ্ধি করে। একঘেয়েমি কাটানোর জন্য যদি মাঝে মাঝে যোগাভ্যাসের রুটিনের কিছু পরিবর্তন ঘটানো যায় তাহলে তা খুবই কার্যকরী হয়। আপনি তখন যোগাভ্যাসের প্রকৃত আনন্দ অনুভব করতে পারবেন।