We use cookies to help you find the right information on mental health on our website. If you continue to use this site, you consent to our use of cookies.

নতুন মাতৃত্ব: একজন মায়ের সুস্থতায় তাঁর স্বামী ও পরিবারের ভূমিকা কী হতে পারে?

একটি বাচ্চার জন্মের পর একজন মায়ের অর্থাৎ একটি মহিলার শরীরে ও তার জীবনে যে পরিবর্তন ঘটে, তার মোকাবিলা করার জন্য বাচ্চার বাবার সাহায্য একান্তভাবে জরুরি হয়ে ওঠে। যখন একজন সদ্য মা তার সন্তানের বাবার সহায়তা পায় তখন সে অনেক কম দিশাহারা বোধ করে। সেই সঙ্গে ওই মা তার দায়িত্বগুলোও অনেক ভালোভাবে পালন করতে সক্ষম হয়।

বাচ্চার বাবার করণীয় কাজগুলো হল-

  • বাচ্চার জন্মের সময়ে উপস্থিত থাকা এবং মা ও বাচ্চার চিকিৎসার প্রতি
    যত্ন নেওয়া
  • মানসিকভাবে স্ত্রীর প্রতি সহানুভুতিশীল থাকা ও সাহায্যের হাত
    বাড়িয়ে দেওয়া
  • সব নতুন মায়েরই কিন্তু সদ্য জন্ম দেওয়া বাচ্চার সঙ্গে জন্ম মুহূর্ত থেকেই দৃঢ় বন্ধন গড়ে ওঠে না। সেক্ষেত্রে বাচ্চার বাবাকেই বন্ধন গড়ে তোলার জন্য উদ্যোগ নিতে হয় এবং বাচ্চার সঙ্গে আস্তে আস্তে বন্ধন দৃঢ় করার জন্য মাকে সেদিকে চালিত করতে হয়
  • মায়ের সঙ্গে বাচ্চার স্নিগ্ধ সম্পর্ক গড়ার ক্ষেত্রে সহায়তা করা
  • বাচ্চার জন্ম দেওয়ার পর একজন মা যে চাপমুক্ত হয়েছে এবং বিশ্রামরত রয়েছে সে ব্যাপারে নতুন মাকে আশ্বস্ত করা জরুরি। কারণ আশ্বস্ত হলেই মা তার বাচ্চাকে স্তন দানে সক্ষম হয়ে ওঠে
  • পারিপার্শ্বিক পরিবেশের সঙ্গে সদ্য পৃথিবীতে আসা সন্তানের প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তোলার প্রক্রিয়ার পরিকল্পনা করা
  • সামাজিক-সাংস্কৃতিক প্রতিবন্ধকতার কারণে হওয়া মানসিক চাপের মোকাবিলায় সহায়তা করা
  • একজন মায়ের দু'বার সন্তানসম্ভবা হওয়ার মাঝে বেশ খানিকটা সময়ের  ব্যবধান থাকা জরুরি। এর ফলে সেই মা শারীরিক ও মানসিকভাবে নিজেকে  প্রস্তুত করতে পারে। গর্ভনিরোধক প্রক্রিয়ার পরিকল্পনা করার জন্য একজন স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞের সঙ্গে আলোচনা করা একান্ত প্রয়োজন।

একজন মায়ের সুস্থ থাকার পিছনে তার পরিবারের ভূমিকা কেমন হওয়া প্রয়োজন?

সন্তানের জন্মের পর একজন মা বেশ দিশাহারা হয়ে পড়ে এবং তখন তার অতিরিক্ত সাহায্যের প্রয়োজন হয়। কয়েকজনের ক্ষেত্রে এইসময়ে মানসিক স্বাস্থ্যের সমস্যাও দেখা দিতে পারে। এই পরিস্থিতিতে পরিবারের পক্ষ থেকে নেওয়া সাহায্যগুলো হল

  • কোনওরকম মানসিক দ্বিধা-দ্বন্দ্ব না রেখে নতুন পরিবারের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া
  • যে কোনও সাংস্কৃতিক ভিন্নতা সত্ত্বেও নতুনকে সম্মান জানানো
  • একজন নতুন মাকে পর্যাপ্ত বিশ্রাম ও সময় দেওয়া জরুরি। এর ফলে মা তার শিশুকে স্তনপান করাতে সক্ষম হয় ও দু'জনের বন্ধনও দৃঢ় হয়

 

 



প্রস্তাবিত